চোরকে গলার মালা দিয়ে স্বাগত জানানো হল পাঞ্জাবে, ভাইরাল ভিডিও

 

পাঞ্জাবে চোর-ডাকাত ধরার যে কাজ পুলিশের করা উচিত, সেটা এখন নিজেরাই করতে বাধ্য হচ্ছে সাধারণ মানুষ। তবে, এখন আর আগের মত চোর-ডাকাত ধরার পর মারধর করছে না সাধারণ মানুষ। বরং, চোরের গলায় মালা পরিয়ে চোরদের ধরা হচ্ছে এবং স্বাগত জানানো হচ্ছে। পাঞ্জাবের পাটিয়ালায় হওয়া এমনই একটি ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

চোরকে ধরার পর এমন আদর সৎকার করার পেছনে জনগণের যুক্তি, তারা যদি চোর-ডাকাতদের মারধর করে তাহলে পুলিশ তাদের কেন মারা হয়েছে তা জিজ্ঞেস করে। তাই তাদের আর কোনো উপায় নেই।

জানা গিয়েছে, পাটিয়ালার রাবাস ব্রাহ্মণ গ্রামে একটি বাইক ও লোহার জিনিসপত্র চুরি করে দুই চোর। এরপর গ্রামবাসীরা একজন চোরকে ধরে ফেলে। যদিও, তার অপর সহযোগী পালিয়ে যায়। এরপর লোকজন চোরকে না মেরে তার গলায় মালা পরিয়ে করতালি দিয়ে তাকে স্বাগত জানায়।

গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন, শের মাজরা গ্রামের গুরপ্রীত সিং জাহলান নামে এক যুবকের সঙ্গে ১৬ থেকে ১৭ জনের একটি দল রয়েছে। এই চক্রের কাজই হচ্ছে চুরি করা এবং মানুষকে লুট করা। এলাকায় এসব লোকজন বাড়ির বাইরে পার্ক করা দু’চাকার গাড়ি চুরি করে। একই দল রাবাসের দরগার পিছনের বাড়ি থেকে একটি ইনভার্টার, ১৫ হাজার টাকা নগদ, বাইক এবং লোহার জিনিসপত্র চুরি করেছে বলে দাবি গ্রামবাসীদের।
চুরিতে অভিযুক্তের কাছ থেকে যে স্প্লেন্ডার বাইকটি আটক করা হয়েছে তাতে নম্বর প্লেট ছিল না। ধৃত চোর জানিয়েছে, বাইকটি চুরি করার পর প্রথম কাজ হল, সেটার নম্বর প্লেট খুলে ফেলা। এই কাজ তারা করতেন যাতে তারা কারো কাছে ধরা না পড়ে। চুরির পর তারা মোটরসাইকেল সরাসরি বিক্রি না করে এর খুচরো যন্ত্রাংশ ভেঙে স্ক্র্যাপ হিসেবে বিক্রি করে।
কিছুদিন আগে, জলন্ধরেও একইভাবে মালা পরিয়ে চোরকে বরণ করা হয়। জলন্ধর শহরের বস্তি এলাকা থেকে শুরু হয় চোরদের স্বাগত। এখানে এলাকার এক যুবক সাইকেল চোরকে ধরে ফেলে। এরপর তার গলায় ফুলের মালা পরিয়ে তাকে স্বাগত জানিয়ে একটি ভিডিও তৈরি করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা হয়। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, এখানেও পুলিশ দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ।

সূত্র: দৈনিক ভাস্কর

সর্বশেষ সংবাদ

জনপ্রিয় গল্প

সর্বশেষ ভিডিও