‘ইন্ডিয়া নয় ভারত’, দেশের নাম বদলের জল্পনার মাঝেই ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য অভিনেতা অমিতাভ বচ্চনের

 

হিন্দুস্তান -ভারতবর্ষ – ইন্ডিয়া। এই নামেই সাধারণত চেনে সবাই। কিন্তু দেশের নাম বদলে ফেলতে চায় নরেন্দ্র মোদী সরকার। শোনা যাচ্ছে, সেপ্টেম্বরের বিশেষ সংসদ অধিবেশনেই নাকি বিল পেশ করা হবে। এই নিয়ে জাতীয় রাজনীতিতে বিতর্ক যখন চরমে ঠিক তারই মাঝে বলিউড অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে বসলেন ভারত মাতা কি জয়।

হঠাৎ বলি অভিনেতার এই টুইট সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো নজর কেড়েেছ নেটিজেনদের। কয়েকদিন আগেই ইন্ডিয়া জোটের তথা তৃণমুল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিজের বাড়িতে চায়ের আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন অমিতাভ বচ্চন। তাঁর স্ত্রী অভিনেত্রী জয়া বচ্চন সমাজবাদী পার্টির সাংসদ। তাহলে কেন এই পোস্ট সোশ্যাল মিডিয়ায় করলেন অমিতাভ বচ্চন এই নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।
শোনা যাচ্ছে, ইন্ডিয়া নাম বদলে নাকি শুধু ভারত করা হবে। গতকাল মোদী সরকারের পরিকল্পনা প্রকাশ্যে আসতেই শোরগোল পড়ে গিয়েছে গোটা দেশে। সংসদের বিশেষ অধিবেশনে এই নাম বদলের প্রস্তাব আনতে চলেছে মোদী সরকার। তার আগে রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু জি-২০ সামিটের আমন্ত্রণ পত্র লিখেছিলেন প্রেসিডেন্ট অব ভারত নাম দিয়ে। তার পরেই শুরু হয়ে যায় হইচই।

বিরোধীরা যদিও এই নাম বদলের রাজনীতির তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে। আগামী ৯ সেপ্টেম্বর জি-২০ সামিটের নৈশভোজের আমন্ত্রণে দ্রৌপদী মুর্মু নিজেকে প্রেসিডেন্ট অফ ইন্ডিয়া না লিখে ভারতের প্রেসিডেন্ট বলে লিখেছেন। কিন্তু হঠাৎ করে অভিনেতা অমিতাভ বচ্চনের এই পোস্ট আরও জল্পনা বাড়িয়েছে। জয়া বচ্চনকে মোদী বিরোধী বা বিজেপি বিরোধী বলেই জানেন সকলে। তার বাড়িতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আমন্ত্রণ জানানো। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বচ্চন পরিবারের ঘনিষ্ঠতার মাঝেই হঠাৎ করে বিগ-বির এই পোস্ট নজর কেড়েছে নেটিজেনদের। তাহলে কী মোদী সরকারের দেশের নাম বদলের সিদ্ধান্তকে সমর্থন করছেন অমিতাভ বচ্চন? উঠছে প্রশ্ন।

সর্বশেষ সংবাদ

জনপ্রিয় গল্প

সর্বশেষ ভিডিও