মুসলমানরা সাধারণত একবিবাহে বিশ্বাস করে, হিন্দুরা প্রায়শই বহুবিবাহ করে, মন্তব্য সাংসদ বদরুদ্দীন আজমলের

একদিকে যখন অসম সরকার রাজ্যে বহুবিবাহ নিষিদ্ধ করার দিকে অগ্রসর হচ্ছে ঠিক সেইসময়ে বহুবিবাহ নিয়ে একটি চাঞ্চল্যকর বিবৃতি দিয়েছেন অল ইন্ডিয়া ইউনাইটেড ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের প্রধান ও সাংসদ বদরুদ্দিন আজমল। তিনি বলেছেন, মুসলমানরা সাধারণত একবিবাহে বিশ্বাস করে এবং হিন্দুরা প্রায়শই একাধিকবার বিয়ে করে।
আজমল শুক্রবার সাংবাদিকদের বলেন, “বিজেপি এবং অসমের মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যে বসবাসকারী মুসলিম জনগণের কাছ থেকে সবকিছু কেড়ে নিয়েছেন। তাদের চাকরি বা টাকা নেই, তাছাড়া হিমন্ত বিশ্ব শর্মা মুসলমানদের জীবিকা নির্বাহের জন্য রাস্তায় সবজি বিক্রি করতে দিচ্ছেন না। তাই মুসলমানরা চাইলেও একবারের বেশি বিয়ে করতে পারে না। ধুবরি লোকসভার সাংসদ আরও বলেন, আজকাল হিন্দুদের প্রায়ই একাধিক স্ত্রী থাকে।
উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই, অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা জোর দিয়ে বলেছিলেন, রাজ্যে বহুবিবাহ নিষিদ্ধ করার পক্ষে একটি শক্তিশালী জনসমর্থন রয়েছে।

রাজ্য সরকার অসমে বহুবিবাহ নিষিদ্ধ করার জন্য একটি আইন প্রবর্তনের সম্ভাব্যতা অধ্যয়নের জন্য একটি কমিটি গঠন করেছিল। সংশ্লিষ্ট কমিটির প্রতিবেদন জমা দেওয়ার পরে, রাজ্য বিধানসভায় একটি আইন আনার আগে সরকারের পক্ষ থেকে জনমত চাওয়া হয়েছিল। এই প্রতিবেদনে, বিশেষজ্ঞ কমিটি বলেছে যে ভারতীয় সংবিধান ইউনিয়ন এবং রাজ্যগুলিকে নির্দিষ্ট বিষয়ে আইন তৈরি করার ক্ষমতা দেয়।
হিমন্ত বিশ্ব শর্মা বলেন, “আমরা আমাদের পাবলিক নোটিশের জবাবে মোট ১৪৯টি পরামর্শ পেয়েছি। এর মধ্যে ১৪৬টি প্রস্তাব বিলের পক্ষে, যা জোরালো জনসমর্থনের ইঙ্গিত দেয়। তবে তিনটি সংগঠন বিলের বিরোধিতা করেছে। তিনি আরও বলেন, “আমরা এখন প্রক্রিয়াটির পরবর্তী পর্যায়ে এগিয়ে যাব, যেখানে আগামী ৪৫ দিনের মধ্যে বিলের চূড়ান্ত খসড়া সম্পন্ন করতে হবে”।

সর্বশেষ সংবাদ

জনপ্রিয় গল্প

সর্বশেষ ভিডিও