ট্রাম্পের হাত থেকে গণতন্ত্রকে রক্ষায় ভোটে লড়ব: বাইডেন

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গণতন্ত্র ধ্বংস করতে চান, এ কারণে আবারও নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার কথা জানিয়েছেন জো বাইডেন। যদিও তাঁর বয়স ইস্যুটি হরহামেশাই আলোচনার বিষয় হয়ে ওঠে।
জো বাইডেনের বয়স এখন ৮০ বছর। যুক্তরাষ্ট্রের এযাবৎকালের সবচেয়ে বয়স্ক প্রেসিডেন্ট তিনি। তাই তাঁর বয়স নিয়ে আলোচনার বিষয়টি সম্পর্কে তিনি জানেন বলেও উল্লেখ করেছেন।
বাইডেন সাধারণত বয়স নিয়ে কোনো কথা বলেন না। তবে গত সোমবার নিউইয়র্কে ব্রডওয়ে থিয়েটারের তহবিল সংগ্রহ অনুষ্ঠানে বক্তব্য দিতে গিয়ে তিনি বলেন, ইউক্রেন ও কোভিড-১৯ সংকটের মতো সমস্যা সমাধানে তাঁর অভিজ্ঞতা সহায়ক হয়েছে।
বাইডেন বলেন, ‘আমি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি। কারণ, গণতন্ত্র ঝুঁকিতে আছে। ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তাঁর রিপাবলিকানরা যুক্তরাষ্ট্রের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করতে বদ্ধপরিকর।’ডেমোক্র্যাট এই নেতা আরও বলেন, তিনি স্বৈরশাসকদের কাছে মাথা নোয়াবেন না। তিনি ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বলেন, তাঁর মেক আমেরিকা গ্রেট অ্যাগেইন (এমএজিএ) স্লোগানটি রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের মতোই।
উল্লেখ্য, মতামত জরিপে দেখা গেছে, আমেরিকান ভোটাররা আগামী নির্বাচনে বাইডেনের বয়স নিয়ে উদ্বিগ্ন।
বিগত ২০২০ সালের নির্বাচনে জো বাইডেন ডোনাল্ড ট্রাম্পকে পরাজিত করেছিলেন এবং আগামী বছর অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে যদি ট্রাম্প আবার রিপাবলিকান প্রার্থী হন, তাহলে এ দুজনকে দ্বিতীয়বারের মতো ভোটযুদ্ধে অবতীর্ণ হতে দেখা যাবে। ট্রাম্প ইতিমধ্যেই ঘোষণা দিয়েছেন, তিনি নির্বাচনে লড়বেন।
বাইডেন বলেন, ‘আমি যখন চার বছর আগে প্রেসিডেন্ট পদে দাঁড়িয়েছিলাম এবং বলেছিলাম যে আমরা আমেরিকার আত্মার জন্য লড়াই করছি। সে লড়াই এখনো চলছে।’
৮০ বছর বয়স্ক বাইডেন বলেন, এখন আত্মসন্তুষ্টির সময় নয় এবং সে জন্যই তিনি পুনর্নির্বাচনের জন্য প্রার্থী হচ্ছেন। তিনি বলেন, ‘আসুন আমরা কাজটা শেষ করি। আমি জানি, আমরা পারব।’ তিনি ‘ম্যাগা চরমপন্থীদের’ প্রতি নিন্দা জানিয়ে রিপাবলিকান মঞ্চগুলোকে আমেরিকার স্বাধীনতার প্রতি হুমকি বলে বর্ণনা করেন।
(সৌজন্যে- প্রথমআলো)

সর্বশেষ সংবাদ

জনপ্রিয় গল্প

সর্বশেষ ভিডিও