মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে হামলার চেষ্টা

 

মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী এন. বীরেন সিংয়ের ইম্ফলের বাড়িতে হামলার চেষ্টা করা হয়েছে। নিরাপত্তা বাহিনী হস্তক্ষেপ করে রাতে জড়ো হওয়া লোকজনকে পিছিয়ে দেয়। সেনাবাহিনী বাতাসে গুলি চালায় বলেও খবর পাওয়া গেছে। ইম্ফলের হাইগাং এলাকায় পরিবারের বাড়িতে হামলার চেষ্টা করা হয়েছে। এই বাড়িতে কেউ বাস করত না, তবে এটি কড়া পাহারায় ছিল। বীরেন সিং ও তার পরিবার সরকারি বাসভবনে থাকেন। নিরাপত্তা বাহিনী জানিয়েছে, দুই দিক থেকে ভিড় আসছিল। সড়কে টায়ার স্তূপ করে পুড়িয়ে ফেলা হয়। দীর্ঘক্ষণ এলাকায় উত্তেজনা বর্তমান থাকে। লোকজনকে সরিয়ে নিতে পুরো এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। টিয়ার গ্যাসের শেলও ছোঁড়া হয়।
প্রসঙ্গত, নিখোঁজ দুই ছাত্র হত্যার প্রতিবাদে মণিপুরে চারদিন ধরে বিক্ষোভ চলছে। বৃহস্পতিবার বিক্ষুব্ধ জনতা মুখ্যমন্ত্রী এন বীরেন সিংয়ের ব্যক্তিগত বাড়িতে হামলা করতে ইম্ফল পৌঁছয়। তবে, বাড়ির প্রায় ৫০০ মিটার আগে পুলিশ তাদের বাধা দেয় এবং কাঁদানে গ্যাসের শেল ছুঁড়ে তাদের তাড়িয়ে দেওয়া হয়। এরপর, মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে।
এর আগে, বুধবার বিক্ষোভকারীরা থোবুল জেলায় বিজেপি অফিসে আগুন ধরিয়ে দেয়। অন্যদিকে, ইম্ফলে বিজেপির রাজ্য সভাপতি শারদা দেবীর বাড়িতেও হামলা হয়েছে। এছাড়াও ইম্ফল পশ্চিমে ডেপুটি কালেক্টরের বাড়িতেও আগুন লাগানোর চেষ্টা করা হয়।
উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, মণিপুর সরকার যেসব এলাকায় সহিংসতা ছড়িয়েছে সেসব এলাকাকে ‘শান্তিপূর্ণ’ হিসেবে ঘোষণা করেছে।
এদিকে, বৃহস্পতিবার ইম্ফল পশ্চিম জেলার টেরায় মৃত ছাত্রদের বাড়ির কাছে হাজার হাজার মানুষ বিক্ষোভ দেখান। তাঁদের দাবি, যত দ্রুত সম্ভব শিক্ষার্থীদের হত্যাকারীদের গ্রেফতার করা হোক।

সর্বশেষ সংবাদ

জনপ্রিয় গল্প

সর্বশেষ ভিডিও