তেলেঙ্গানায় বিআরএস সরকারকে উৎখাত করবে কংগ্রেস, বললেন রাহুল

তেলেঙ্গানায় কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর তিন দিনের নির্বাচনী সফরের আজ শেষ দিন। জগতিয়ালে এক জনসভায় ভাষণ দিতে গিয়ে রহুল বলেন, তেলেঙ্গানায় কংগ্রেসের হিংস্র সিংহের সরকার হবে। এখানে জনগণের সরকার হবে। কংগ্রেসের বব্বর শের বিআরএস সরকারকে উৎখাত করবে। তেলেঙ্গানার স্বপ্ন পূরণের প্রথম ধাপ হল বর্ণভিত্তিক গণনা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং মুখ্যমন্ত্রী কেসিআর এখানে বর্ণ শুমারি করতে চান না। তেলেঙ্গানার এই স্বপ্ন পূরণ করবে কংগ্রেস।
প্রসঙ্গত, রাহুল গান্ধী ১৮ থেকে ২০ অক্টোবর তেলেঙ্গানা সফরে রয়েছেন। আজ তিনি কোন্ডাগাট্টুর একটি দোকানে দোসাও তৈরি করেন। বুধবার, নির্বাচনী সফরের প্রথম দিনে, রাহুল এবং প্রিয়াঙ্কা তেলেঙ্গানার মুলুগু জেলার রামাপ্পা মন্দিরে পৌঁছন। রাহুল ও প্রিয়াঙ্কা রামাপা মন্দিরে প্রার্থনা করেন। মন্দির পরিদর্শনের পর দুই নেতাই মুলুগু জেলায় রোড শো করেন। তেলেঙ্গানা সফরের দ্বিতীয় দিনে, রাহুল গান্ধী ভুলাপল্লিতে বিজয়বেরী যাত্রায় যোগ দেন। তেলেঙ্গানায় সিঙ্গারেনি কয়লা খনি কর্মীদের সঙ্গেও দেখা করেন তিনি।
জগতিয়ালের জনসভায় রাহুল বলেন, তেলেঙ্গানায় বিজেপি, বিআরএস এবং এআইএমআইএম দলগুলি মিশ্রিত। যেখানেই আমরা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করি, এআইএমআইএম বিজেপিকে সাহায্য করার জন্য তাদের প্রার্থী দেয়।
জাত শুমারির রাহুল গান্ধী বলেন, প্রধানমন্ত্রী মোদি বা কেসিআর কেউই তেলেঙ্গানায় ওবিসি শ্রেণীর জনসংখ্যা বলতে চান না। আমি লোকসভায় জাতি শুমারির বিষয়টি উত্থাপন করেছি কিন্তু, প্রধানমন্ত্রী আমার প্রশ্নের উত্তর দেননি।
কংগ্রেস সাংসদ বলেন, দেশের ৯০ জন অফিসারের মধ্যে মাত্র ৩ জন অফিসার ওবিসি ক্যাটাগরির, যারা দেশের বাজেটের মাত্র ৫ শতাংশ নিয়ন্ত্রণ করে। দেশে ওবিসি জনসংখ্যা কি মাত্র ৫ শতাংশ? পিএম মোদি আপনাকে এই সত্যটি বলতে চান না, কারণ তিনি আপনার পকেট থেকে টাকা বের করে আদানির মতো লোকদের পকেটে রাখেন।

একইসঙ্গে, কেসিআরকে নিশানা করে রাহুল বলেন, তেলেঙ্গানার পুরো সম্পদ একটি পরিবারের নিয়ন্ত্রণে। রাজ্যে হাজার হাজার কোটি টাকা আসছে, কিন্তু এখানকার চিনির কারখানা বন্ধ। কংগ্রেস সরকার এলে এই চিনি কারখানা আবার চালু করবে।

সর্বশেষ সংবাদ

জনপ্রিয় গল্প

সর্বশেষ ভিডিও