মুর্শিদাবাদে তৃনমূল কংগ্রেসের সাংসদ-বিধায়কদের উপস্থিতিতে ইমাম মুয়াজ্জিন সংগঠনের সভা

 

রাজ্যের বর্তমান শাসক দল তৃনমূল কংগ্রেসের সাংসদ- বিধায়কদের উপস্থিতিতে বৃহঃস্পতিবার মুর্শিদাবাদ জেলার বহরমপুরে সভা করল অল বেঙ্গল ইমাম মুয়াজ্জিন অ্যাসোসিয়েশন অ্যান্ড চ্যারিটেবল ট্রাষ্ট মুর্শিদাবাদ জেলা কমিটি। জেলা পরিষদের অডিটরিয়াম হলে অনুষ্ঠিত ওই সভার আলোচ্য বিষয় ছিল স্বাস্থ্য ও হজ্জ।
এদিনের সভায় বিধায়ক নিয়ামত সেখ ও হুমায়ূন কবীর, সাংসদ আবু তাহের খান বক্তব্য রাখেন।
বিধায়ক হুমায়ন কবির বলেন, ‘ইমামরা হচ্ছেন আমাদের সমাজের নেতা। তারা আমাদেরকে পরিচালনা করেন। তারা যেভাবে সমাজের কাজ করে চলেছে সত্যিই তা প্রশংসা যোগ্য। ইমাম মুয়াজ্জিনদেরকে যে ভাতা ওয়কাফ বোর্ড থেকে দেওয়া হয় তা খুব‌ই কম। আমাদের আবেদন ইমাম মুয়াজ্জিনদের ভাতা যাথাক্রমে পাঁচ হাজার ও চার হাজার হ‌ওয়া উচিত।’
তিনি এই প্রতিবেদককে টেলিফোনে বলেন, মুখ্যমন্ত্রীর কাছে আবেদন করছি, কোষাগারে যদিও টানাটানি চলছে, তবুও বর্তমান দ্রব্যমূল্যের বাজারে ইমাম মুয়াজ্জিনদের ভাতা বাড়ানো উচিত। ভাতা দেওয়ার আগে ইমামদের সাম্মানিক দিত সমাজ থেকে, যেহেতু দিদি ভাতা দেওয়া শুরু করেছেন তাই তিনি যদি একটু টাকা বাড়াতেন ভালো হত।

মুর্শিদাবাদের সাংসদ আবু তাহের খান বলেন, আজকের সভা থেকে ইমাম মুয়াজ্জিনদের যে দাবি দাওয়ার কথা উঠে এসেছে সেগুলোর জন্য যথা উপযুক্ত পদক্ষেপ নেবো এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে সেগুলো পৌঁছে দেব।
এদিন অল বেঙ্গল ইমাম মুয়াজ্জিন অ্যাসোসিয়েশন অ্যান্ড চ্যারিটেবল ট্রাস্টের রাজ্য সভাপতি মাওলানা নিজামুদ্দীন বিশ্বাস সংগঠনের স্বাস্থ্য,শিক্ষা,বাল্য বিবাহ, মদ সহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেন। এছাড়া স্কুল ছুটদের স্কুলে ফেরানোর উপর জোর দেন। পবিত্র হজ্জ নিয়ে ইমাম মুয়াজ্জিনরা যেন সমাজের মানুষদের সচেতন করেন সেই আহ্বান জানান তিনি।
মাইনরিটি ডিপার্টমেন্টের সাবির গাফফার বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সংখ্যালঘু মুসলিমদের জন্য অনেক প্রকল্পের ব্যবস্থা করেছেন। সেগুলো সাধারণ মানুষদের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য ইমাম মুয়াজ্জিনদের এগিয়ে আসতে হবে।

ইমাম মুয়াজ্জিনদের সভায় মুর্শিদাবাদের মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক সন্দীপ স্যানাল বলেন, জেলায় অনেক নতুন হসপিটাল তৈরি হয়েছে এবং হচ্ছে। ইমাম মুয়াজ্জিনরা যেভাবে বিভিন্ন সচেতনতামূলক কাজ করে চলেছে সত্যিই তা প্রশংসা যোগ্য।
জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের জেলা সভাপতি মাওলানা বদরুল আলম দলমত নির্বিশেষে মাসলাকি ইখতিলাফ ভুলে জাতির স্বার্থে সকলকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান।
সভা শেষে ইমাম মুয়াজ্জিনদের হাতে একটি করে ফাইল ও মশারি তুলে দেওয়া হয়। এদিনের সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সভাপতি ওলিউল্লাহ বিশ্বাস, রাজ্য কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান মুস্তাফিজ হাসমি, ডোমা রেনুকা খাতুন, ডাক্তার গোলাম নবী ও এনামুল হক,
চেয়ারম্যান মাইনুল ইসলাম, পুরোহিত প্রদীপ চক্রবর্তী, মাওলানা আতিকুর রহমান প্রমুখ।

সর্বশেষ সংবাদ

জনপ্রিয় গল্প

সর্বশেষ ভিডিও