শাওন দাসের বিবৃতি

 

“আজ শবেবরাত। কাল রোজা রেখেছিলেন আয়েষা বিবি, মিনাখাঁর লড়াকু নেত্রী, ইণ্ডিয়ান সেক্যুলার ফ্রন্টকে সমর্থন করায় গত বিধানসভা ভোটের সময় থেকে ঘরছাড়া ছিলেন। শ্বশুর বাড়ি, বাপের বাড়ি – দুই বাড়িতেই ঢুকতে পারেন নি দীর্ঘদিন। চূড়ান্ত সন্ত্রাসের সামনেও মাথা নীচু করেন নি। ভোট পরবর্তী সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে আইনি লড়াইয়েও সামনের সারিতে থেকেছেন। এরপর চূড়ান্ত সন্ত্রাসের মধ্যে দাঁড়িয়ে পঞ্চায়েত ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চেয়েছিলেন। নমিনেশন ফাইল করতে পারেন নি। হাইকোর্টে মামলা হয়েছে। এইরকম হাজার প্রতিকূলতার মাঝেও এই বছর মাধ্যমিকে মুক্ত বিদ্যালয় থেকে ভালো রেজাল্ট নিয়ে পাশ করেছেন।

কাল রোজা অবস্থায় পুলিশ টানতে টানতে তুলে নিয়ে গেল আয়েষাকে। অভিযোগ সন্দেশখালি নিয়ে প্রতিবাদে সোচ্চার হয়েছিলেন। তাই সম্পূর্ণ মিথ্যা মামলায় গ্রেফতার করলো সন্দেশখালি থানার পুলিশ। আজ বসিরহাট কোর্টে তোলা হবে। শবেবরাতের সময় একজন মহিলার ওপর এই আক্রমণ চালাচ্ছে “মা মাটি মানুষে”র সরকারের পুলিশ।

একজন মহিলার ওপর এই আক্রমণের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলুন।
শবেবরাতের আগের দিন রোজাদার অবস্থায় এই আক্রমণের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলুন।
এই স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলুন।
এই দ্বিচারিতার বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলুন।
এই রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলুন।”

শাওন দাস
অবজার্ভার, মিনাখাঁ বিধানসভা
ইন্ডিয়ান সেক্যুলার ফ্রন্ট

সর্বশেষ সংবাদ

জনপ্রিয় গল্প

সর্বশেষ ভিডিও